ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন ?

46 Hits

নতুন যারা ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চান, তারা ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে ডিটেইলস জানতে চাই এবং ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন ইত্যাদি সম্পর্কে ডিটেলস জানার প্রয়োজন পড়ে। আজ আমি ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। 

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন
ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন নতুন ফ্রিল্যান্সারদের কাছে একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন। কারণ আপনার ফ্রিল্যান্সিং শুরু করার আগে আপনার ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে ডিটেলস জানার জন্য এই প্রশ্নটা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ।  ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন এবং নতুনদের ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল হওয়ার জন্য কিসের প্রয়োজন ইত্যাদি সম্পর্কে আলোচনা করার চেষ্টা করব। 

আমি শরিফুল ইসলাম এবং আমার ব্র্যান্ডিং নেম websoriful. আমার গত তিন বছরে ফ্রিল্যান্সিং অভিজ্ঞতার আলোকে আমি আপনাদের ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন ইত্যাদি সম্পর্কে ডিটেলস আলোচনা করার চেষ্টা করব। কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করি

কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট কানেকশন

ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য আপনার যে দুটি বিশেষ প্রয়োজন তার মধ্যে এক নম্বর হচ্ছে ইন্টারনেট এবং দুই নম্বর হচ্ছে কম্পিউটার। কাজ করার জন্য এই দুইটি প্রয়োজন। সুতরাং আপনার এই দুটির মধ্যে যদি একটি না থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন না।

আপনার কম্পিউটার এবং ভালো ইন্টারনেট কানেকশন যদি থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার ফ্রিল্যান্সিং শুরু করা উচিত। এদুটি ছাড়া অবশ্যই আপনি  ফ্রিল্যান্সিং শিখতে এবং করতে পারবেন না।

তবে বর্তমানে মোবাইল হচ্ছে একটি মিনি কম্পিউটার। কম্পিউটার দিয়ে যে কাজ করা সম্ভব মোবাইল দিয়ে তার চেয়ে আরো বেশি ভালো মানের কাজ করা সম্ভব। তবে মোবাইলের প্রধান সমস্যা হচ্ছে ডিসপ্লে। এটা অনেক ছোট এবং অনেক কাজ করার জন্য মাউস এর প্রয়োজন হয়।

আপনার যদি কম্পিউটার না থাকে, তাহলেও আপনি ফ্রিল্যান্সিং অনেক কাজ করতে পারবেন। মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য আপনার জন্য দুইটি টিপসঃ আর্টিকেল

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং – মোবাইল দিয়ে কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় ?

3 টি মাধ্যমে মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায়

ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানা

আপনার যদি ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য হাতিয়ার থাকে অর্থাৎ কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট থাকে তাহলে আপনার ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানা উচিত। অর্থাৎ ফ্রিল্যান্সিং কি? কিভাবে করে? কি কি দিয়ে করে? কি কি কাজ করা যায় ইত্যাদি সম্পর্কে।

আপনার প্রধান টার্গেট থাকবে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানা। ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য আপনি  গুগোল আর্টিকেল এবং ইউটিউব ভিডিও দুইটি মাধ্যমে জানতে পারেন।

ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার এর ভবিষ্যৎ , ফ্রিল্যান্সিং ভবিষ্যৎ 2022

উপরের আর্টিকেলটি পড়ে আশা করি বুঝতে পেরেছেন ফ্রিল্যান্সিং কি এবং ভবিষ্যতের জন্য ফ্রিল্যান্সিং।

ফ্রিল্যান্সিং স্কিলের উপর কাজ শেখা

ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানার পর আপনার প্রধান টার্গেট থাকবে কোন একটি স্কিনের উপর আপনার ফ্রিল্যান্সিং কাজ শেখা। 

অর্থাৎ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে প্রবেশ করার জন্য আপনাকে অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং কাজ শিখতে হবে। এর জন্য একটি ভাল স্ক্রিন এর উপর আপনারা অবশ্যই কাজ শেখা উচিত।

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন এই প্রশ্নের  উত্তরে আমি বলব আপনার অবশ্যই একটি ভাল স্কিলের এর উপর কাজ শেখা প্রয়োজন। আমি কোন স্কিলের উপর কাজ শিখব?

এটি একটি জাতীয় প্রশ্ন। নতুন ফ্রিল্যান্সারদের সবার মনেই প্রশ্ন টি থাকে।  তবে চিন্তার কারণ নেই। আমি আমার 3 বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে আপনার কোন বিষয়ের উপর কাজ শেখা উচিত? এই বিষয়ে আমি একটি আর্টিকেল প্রকাশ করেছি। আপনি অবশ্যই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ করা উচিত।

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ – কোন কাজ শেখা উচিত! বিস্তারিত জানুন

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানা

ফ্রিল্যান্সিং এন্ড আউটসোর্সিং
ফ্রিল্যান্সিং এন্ড আউটসোর্সিং

আপনার কোন একটি বিষয়ে কাজ শেখার পর আপনার প্রধান টার্গেট থাকবে সেই বিষয়ের উপর ফ্রিল্যান্সিংয়ে কাজ করা।সুতরাং আপনি কোন মার্কেটপ্লেস দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন? এ সম্পর্কে আপনার ডিটেইলস ধারণা থাকা উচিত।

অর্থাৎ বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে আপনার ডিটেইলস ধারণা। কোন মার্কেটপ্লেস কিভাবে কাজ করা যায়? কিভাবে কোন মার্কেটপ্লেসে সহজেই সফল হওয়া যায় ইত্যাদি সম্পর্কে ধারণা।

মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে ধারণা নেওয়ার পর আপনার পরবর্তী টার্গেট হবে সেই মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট করে সেই মার্কেটপ্লেসে ফ্রিল্যান্সিং কাজ করা।

মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে ধারণা নেয়ার জন্য আমার এই ওয়েবসাইটে তিনটি সেরা আর্টিকেল রয়েছে। আপনার অবশ্যই তিনটি আর্টিকেল পড়া উচিত।

ফ্রিল্যান্সিং কাজ শেখার পর কোন মার্কেটপ্লেস দিয়ে কাজ শুরু করবেন?

Fiverr vs Upwork- কোন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস সেরা ?

ফাইবার ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসকে পছন্দ না করার 6টি কারণ

ক্লায়েন্ট কমিউনিকেশন

ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল হওয়ার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উৎপাদন হচ্ছে ক্লায়েন্টদের সাথে কমিউনিকেশন। অর্থাৎ আপনি যদি ভালোভাবে কমিউনিকেশন করতে পারেন, তাহলে আপনি অনেক বেশি কাজ পাবেন।

আর আপনি যদি ক্লায়েন্টের সাথে ভালোভাবে কমিউনিকেশন করতে না পারেন। তাহলে আপনি কাজ পাবেন না। সুতরাং কাজ না পেলে আপনি ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল হতে পারবেন না।

যেহেতু ফ্রিল্যান্সিংয়ে  আপনার সবগুলো ক্লায়েন্ট ইউরোপ-আমেরিকার হয়ে থাকে। সুতরাং আপনাকে ক্লায়েন্টের সাথে অবশ্যই ইংরেজিতে কথা বলতে হবে। ক্লায়েন্টদের সাথে ইংরেজিতে কথা বলার জন্য অবশ্যই আপনার ইংরেজি দক্ষতা থাকা প্রয়োজন।

অনেকেই আছে ইংরেজিতে দক্ষ নই এবং তারা ইংরেজিতে কথা বলতে পারেনা। তারা কিভাবে কথা বলবে? অর্থাৎ আমি ইংরেজিতে কথা বলতে পারি না। আমি কিভাবে ক্লায়েন্টদের সাথে কথা বলতে পারব?

আপনি যদি ইংরেজি একবারই না বুঝেন। তা হলেও সমস্যা নেই। এর একটি ভালো সমাধান রয়েছে। আমি আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলব

আমি যখন নতুন ফ্রিল্যান্সিং শুরু করি। তখন আমি ইংরেজিতে একেবারেই জিরু ছিলাম। তবে ক্লায়েন্টদের সাথে কমিউনিকেশনের সময় আমি অবশ্যই গুগল ট্রান্সলেট ব্যবহার করতাম। এখনো আমি গুগল ট্রান্সলেট ব্যবহার করে ক্লায়েন্টের সাথে কমিউনিকেশন করে থাকি।

যেহেতু মার্কেটপ্লেসে ক্লায়েন্টদের সাথে কমিউনিকেশনের সময় চ্যাটিং করা হয়। অর্থাৎ আপনি যেভাবে ফেসবুকে আপনার বন্ধুদের সাথে কথা বলে থাকেন। সেভাবে মার্কেটপ্লেসে ক্লায়েন্টের সাথে চ্যাটের মাধ্যমে কথা বলতে হবে।

ক্লায়েন্টদের কথা বুঝার জন্য ক্লায়েন্টদের টেক্সট গুগল ট্রান্সলেট এ বাংলা ট্রান্সলেট করুন। এবং ক্লায়েন্টের কথার জবাব দেওয়ার জন্য আপনার কথাটি বাংলাতে ট্রান্সলেট এ টাইপ করুন এবং ইংরেজীতে ক্লায়েন্টের কাছে প্রেরণ করুন।

সুতরাং এইভাবে আপনি ক্লায়েন্টের সাথে খুব ভালোভাবে কমিউনিকেশন করতে পারবেন। আমি ওইভাবে ক্লায়েন্টের সাথে কথা বলতাম। এখনো ক্লায়েন্টের সাথে এইভাবে কমিউনিকেশন করি। ভালো ফ্রিল্যান্সার হতে হলে অবশ্যই আপনাকে ইংরেজি জানতে হবে। সুতরাং ট্রান্সলেট এর সাহায্যে শুরু করতে পারেন। তবে আস্তে আস্তে আস্তে আপনি ইংরেজি দক্ষতা উন্নত করুন। ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন সুতরাং এ প্রশ্নের জবাবে বলা যায় আপনার কমিউনিকেশন দক্ষতা প্রয়োজন।

ইচ্ছা এবং ধৈর্য শক্তি

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন এই প্রশ্নের উত্তর আমি সর্বপ্রথম বলব আপনার ধৈর্য এবং ইচ্ছাশক্তি খুবই বেশি প্রয়োজন। অধৈর্য ব্যক্তিরা কখনো ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল হতে পারবে না।

ফ্রিল্যান্সিং এ সফল হওয়ার জন্য আপনার নতুন অবস্থায় অনেক বেশি ধৈর্যশীল হওয়া প্রয়োজন। কারণ নতুন অবস্থায় আপনি সহজে ক্লায়েন্ট খুঁজে পাবেন না। সুতরাং সেই সময় যদি আপনিও ধৈর্যশীল হয়ে যান, তাহলে অবশ্যই আপনি সফল হতে পারবেন না।

কাজ আসুক বা না আসুক প্রতিদিন আপনার ডেইলি রুটিন অনুযায়ী মার্কেটপ্লেসে অ্যাক্টিভ থাকা এবং নতুন নতুন স্কিল ডেভেলপ করা ইত্যাদি আপনার প্রতিদিনের রুটিন হওয়া উচিত। 

আস্তে আস্তে দেখবেন আপনি অনেক বেশি ক্লায়েন্ট পাবেন এবং একসময় আপনি অনেক ভাল একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে উঠবেন।  সুতরাং ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন এই প্রশ্নের উত্তরে আমি বলব অনেক বেশি ধৈর্যশীল এর প্রয়োজন।

ফ্রিল্যান্সিং করে ঘরে বসে আয় করার পর্বে যে সকল বিষয় আপনার অবশ্যই জানতে হবে ?

উপসংহার

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন এই প্রশ্নের উত্তর আমি অলরেডি দিয়ে দিয়েছি। ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য  আপনার কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট এর পাশাপাশি  ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে জানা,  ফ্রিল্যান্সিং কাজ শেখা,  মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে জানা,  কমিউনিকেশন  ও ধৈর্য এবং ইচ্ছাশক্তি প্রয়োজন।

আশা করি আপনি বুঝতে পেরেছেন ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন।  ফ্রিল্যান্সিং, অনলাইনে ইনকাম,  ব্লগিং এবং অনলাইনের বিভিন্ন টিপস এন্ড ট্রিকস এ রেগুলার আপডেট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। এবং আমি আমার অভিজ্ঞতার আলোকে আপনাদের সঠিক এবং নির্ভরযোগ্য তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব।

আপনার যদি কোন প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে পারেন আমি সবগুলো প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার জন্য আপনাদের সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। সবাই ভাল থাকেন সুস্থ থাকেন। সবাইকে আবারো ধন্যবাদ 

Leave a Comment

Your email address will not be published.