ওয়েবসাইটের পোস্ট গুগল ইনডেক্স সমস্যার সমাধান




বর্তমানে ব্লগারদের সবথেকে বড় সমস্যা হচ্ছে গুগল ইনডেক্স করা। নতুন ব্লগাররা তাদের ওয়েবসাইট গুগোল ইনডেক্স করার সময় বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়। ফেসবুক গ্রুপে এবং আমাকে অনেকে পার্সোনালি মেসেজ করে গুগোল ইনডেক্স সমস্যাগুলো জন্য সমাধানের পথ জানতে চাই। তাই আজ আমি গুগল ইনডেক্স বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন। 

আপনার ওয়েবসাইট যদি গুগল সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স না হয়, তাহলে আপনি সার্চ ইঞ্জিন থেকে কোন ট্রাফিক পাবেন না। আপনার ব্লগের আর্টিকেলগুলো যত দ্রুত সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স হবে, ততই আপনার জন্য ভালো। কারণ তাড়াতাড়ি সার্চ ইঞ্জিন হতে আপনার ব্লগ অর্গানিক ট্রাফিক পেতে সক্ষম হবে।

আজকের আমরা গুগল সার্চ ইঞ্জিনে কিভাবে দ্রুত ইনডেক্স করতে হয়, সে বিষয়ে আলোচনা করবো। তো চলুন শুরু করি……

সার্চ ইঞ্জিন ইনডেক্স কি?

সহজ কথায়, আপনি একটি তথ্য ইন্টারনেটে রাখবেন। সেই তথ্যটা কে প্রয়োজন অনুযায়ী ভিজিটরদের দেখানো। সার্চ ইঞ্জিনে ডাটা সংগ্রহ করে রাখার প্রসেস গুলোর সর্বশেষ ধাপ হচ্ছে ইনডেক্স। 

অর্থাৎ কোন প্রয়োজনে আপনি যদি গুগলে কোন কিছু সম্পর্কে সার্চ দেন, সেই রিলেটেড রেজাল্ট গুলো গুগল আপনাকে দেখাবে।  সেই তথ্যগুলো আগেই গুগল তাদের ডাটাবেসে রেখে দিছে। আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী আপনাকে তা দেখাবে।

সার্চ ইঞ্জিনগুলো ওয়েব পেজের গুনগত মান বিশ্লেষণ করে সার্চ রাংকিং নির্ধারণ করে। সার্চ এলগরিদম সাজিয়ে রাখার কাজটি Indexing এর মাধ্যমে করে থাকে। তবে এই পুরো প্রক্রিয়াটি কোন মানুষের দ্বারা করা হয় না। এই প্রক্রিয়াটি গুগল বট/রোবট দ্বারা করানো হয়। গুগল বট হচ্ছে এক ধরনের সফটওয়ার। 

সার্চ ইঞ্জিন ক্রলিং কি?

ক্রলার হচ্ছে এক ধরনের সফটওয়ার। গুগল সার্চ ইঞ্জিন এটিকে সার্চ ইঞ্জিন বট/রোবট ও স্পাইডার নাম দিয়েছে। এই ক্রলার বা বট প্রতিনিয়ত অনলাইনের সকল নতুন ‍ও পুরাতন ওয়েবসাইটের লিংকে ঘুরে ঘুরে তথ্য সংগ্রহ করে। এক কথায় ক্রলার হচ্ছে অনলাইন হতে বিভিন্ন ওয়েবসাইট সম্পর্কে প্রাথমিক ধারনা সংগ্রহকারী সফটওয়ার।

সার্চ ইঞ্জিন ক্রলার প্রথম অবস্থায় একটি ওয়েবসাইট ভিজিট করে ওয়েবসাইটের সম্পূর্ণ আর্টিকেল ও বিষয়বস্তু সম্পর্কে ধারনা নেয়। তারপর এনালাইজ করে আর্টিকেলগুলো Index করার জন্য ডাটা সেন্টারে পাঠিয়ে দেয়। গুগল বট সফটওয়ার টি পুনরায় একটি পোস্ট ভালো ভাবে স্ক্যান করে পোস্ট সেই সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা নিয়ে সেটির সার্চ র‌্যাংকিং নির্ধারণ করে ডাটা সেন্টারে র‌্যাংক অনুসারে সাজিয়ে রাখে।

কোনো ভিজিটর যখন কোন একটি কীওয়ার্ড লিখে সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করে, তখন সার্চ ইঞ্জিন তাদের তথ্য ভান্ডার হতে সার্চকৃত কীওয়ার্ড এর র‌্যাংক করা পোস্টগুলো ধারাবাহিকভাবে সার্চ রেজাল্টে শো করে।

সার্চ ইঞ্জিনে পোস্টগুলো রাংকিং প্রক্রিয়াটি করার ক্ষেত্রে গুগল অনেক ধরনের র‌্যাংকিং ফ্যাক্টর বিশ্লেষণ করে। সবগুলো ফ্যাক্ট বিশ্লেষণ করে ভিজিটরকে সবচাইতে সঠিক, উপযুক্ত ও ভালো মানের রেজাল্ট সার্চ ইঞ্জিনের রেজাল্ট পেজে ধারাবাহিকভাবে প্রদর্শন করে।

আপনি যদি সার্চ ইঞ্জিন সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান, তাহলে এসইও ক্যাটাগরিতে ভিজিট করুন।

পোস্ট দ্রুত ইনডেক্সিং করতে: 

কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট গুলো দ্রুত ইনডেক্স করবেন এ সম্পর্কে আমি একবার ডিটেলসে বলব। তো চলুন শুরু করি

1. সার্চ ইঞ্জিনকে উৎসাহিত করা: আপনার ওয়েবসাইট টা কে গুগল সার্চ ইঞ্জিন তাদের সার্চ রেজাল্টে দেখায় এর জন্য আপনাকে একটি কাজ করতে হবে। যদি আপনার ওয়েবসাইটটা ওয়ার্ডপ্রেসের হয়, তাহলে আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস এর Settings>reading অপশনের Search engine visibility তে যদি কোন টিকমার্ক থাকে, তাহলে টা তুলে দিন। আমি আবারো বলছি এখানে কোন টিক মার্ক দেওয়া যাবে না। না বুঝলে নিচের চিত্রটি দেখুন:

গুগল ইনডেক্স

আর যদি আপনার ওয়েবসাইট ব্লগার দিয়ে তৈরি হয়, তাহলে আপনি সেটিং অপশন থেকে Privacy তে Visible to search engines অপশনটি অন করে দেবেন। আমি আবারও বলছি এটা কিন্তু অন করা থাকবে। যদি না বুঝেন, নিচের চিত্রটি দেখুন:

গুগল ইনডেক্স

2. সার্চ কনসোলে সাইটম্যাপ সাবমিট: একটি নতুন ওয়েবসাইট গুগল সার্চ ইঞ্জিনের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য Google Search Console অত্যান্ত কার্যকরী একটি গুগলের টুলস। গুগল সার্চ কনসলে আপনার ব্লগের সাইটম্যাপ সাবমিট করে রাখলে, গুগল আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যাবে এবং আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট গুলো খুব দ্রুত গুগলে ইনডেক্স করবে।

প্রত্যেকটি সার্চ ইঞ্জিনে সাইটম্যাপ সাবমিট করার জন্য টুলস রয়েছে। আপনি অবশ্যই সবগুলো সার্চ ইঞ্জিনে আপনার ওয়েবসাইটের সাইটম্যাপ সাবমিট করে রাখবেন। আপনার ব্লগ পোষ্ট তাড়াতাড়ি সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স হওয়ার জন্য অবশ্যই Google, Bing এবং Yahoo  ওয়েবমাষ্টার টুলে সাইটম্যাপ সাবমিট করে রাখবেন। 

নিচের চিত্রটি দেখুন, আমি আমার ওয়েবসাইটের সাইটম্যাপ গুলা গুগল সার্চ কনসোলে যুক্ত করে রাখছি।

গুগল ইনডেক্স

3. ভালো মানের কনটেন্ট: একটি আর্টিকেল দ্রুত গুগল ইনডেক্স পূর্ব শর্ত হচ্ছে ভালো মানের ইউনিক আর্টিকেল লিখা। আপনি যখন কন্টেন্ট লিখবেন তখন এই বিষয়টি খেয়াল রাখবেন।ভালো মানের কনটেন্ট রাঙ্কিং এবং ট্রাফিক ধরে দেখতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

অনেক নতুন ব্লগার আছে যারা কিওয়ার্ড রিসার্চ না করেই আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করে। কিন্তু গুগল থেকে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে কোন ফলাফল পায়না। এর কারণ হচ্ছে তার কিওয়ার্ড ঠিক নাই, অথবা তার আর্টিকেল ভালো নয়।

যদিও কোনো নতুন ব্লগার ভালো মানের কনটেন্ট লিখে গুগল রেংকিং করে, তবে কোন ভিজিটর পাই না। এর কারণ হচ্ছে সে যে কীওয়ার্ড এর উপর ভিত্তি করে কনটেন্ট লিখেছিল, তার সার্চ ভলিয়ম নাই।

আর্টিকেল ইনডেক্স না হওয়ার কারণ:

উপরের আমি যে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করলাম, আপনি যদি এই বিষয়গুলো না করে থাকেন, তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে আর্টিকেল গুগল ইনডেক্স না হতেও পারে। কিন্তু দেখা গেছে অনেকের ওয়েবসাইটে উপরের কাজগুলো করার পরেও পোস্ট ইনডেক্স  হচ্ছে না। সুতরাং পোস্ট ইনডেক্স না হওয়ার কারণ গুলো সম্পর্কে আমি বিস্তারিত বলবো।

1. অন পেজ এসইও করা: একটি আর্টিকেল দ্রুত গুগল ইনডেক্স এবং সার্চ ইঞ্জিন রাংকিং এর ক্ষেত্রে অন পেজ এসইও খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এমনকি আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের ১০০% অন পেজ এসইও করেন, যদি অফ পেজ এসইও না করেন। তাহলেও আপনার ওয়েবসাইট টপ রেংকিং আসতে পারে।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে আর্টিকেল গুগলের টপ রেংকিং এ  আনতে চান, তাহলে এই আর্টিকেলটি পড়তে পারেন: অন পেজ এসইও করে ওয়েবসাইট গুগোল রেংকিং 100% গ্যারান্টি

2. কপি কনটেন্ট: আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে কপি কনটেন্ট পাবলিশ করেন,তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের পোস্ট বা আর্টিকেল ইনডেক্সিং না হতে পারে। কনটেন্ট বলতে আমি বোঝাচ্ছি আর্টিকেল এবং ইমেজ অন্য ওয়েবসাইট থেকে চুরি করা। সুতরাং অন্য ওয়েবসাইট থেকে কনটেন্ট চুরি করে নিজের ওয়েবসাইটে কখনোই বসাবেন না। কারণ এটা একটি বড় ধরনের অন্যায়। কনটেন্ট কপি করলে রেংকিং এর ক্ষেত্রে বাজে কি প্রভাব ঘটে। সুতরাং সার্চ ইঞ্জিনের পেলান্টি না খেতে চাইলে এখনই সাবধান হোন। 

গুগল ইনডেক্সিং চেক করা:

এখন আমি আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে আপনাদের ওয়েবসাইটের আর্টিকেল বা পেইজ বা ক্যাটাগরি গুগোল ইনডেক্সিং চেক করবেন। গুগোল ইনডেক্সিং চেক করা খুবই সহজ।

আপনি যে ওয়েবসাইট, পেজ, ক্যাটাগরি বা পোস্ট ইনডেক্সিং চেক করতে চান,  তার সম্পূর্ণ URL কপি করুন। “http:” বা “https:” কেটে দিয়ে তার সামনে “site:” শব্দটি লিখুন। তারপর গুগলে সার্চ দেন। যদি আপনার ওয়েবসাইটের রেজাল্ট আসে, তাহলে বুঝবেন আপনার সেই পেজ বা আর্টিকেল বা ক্যাটাগরিতে গুগোল ইনডেক্স হয়েছে। আর যদি না আসে, তাহলে গুগলে ইনডেক্স হয় নাই। যদি না বুঝে থাকেন, তাহলে নিচের চিত্রটি দেখুন:

গুগল ইনডেক্স

উপরের চিত্রটিতে আমি আমার ওয়েবসাইটের একটি পোস্ট ইনডেক্সিং চেক করে দেখেছি। এবং একটা  ফলাফল দেখতে পাচ্ছেন। তার মানে হচ্ছে আমার এই পোস্টটি গুগোল ইনডেক্স করেছে। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। 

গুগোল কোন আর্টিকেল ইনডেক্স করতে কত সময় লাগে?

এর কোনো নির্দিষ্ট টাইম টেবিল নাই। 1 ঘন্টা, একদিন, এক সপ্তাহ এমনকি একমাসেও সময় নিতে পারে। সুতরাং চিন্তার কোন কারণ নেই, আপনার আর্টিকেলটা যদি ঠিক থাকে, তাহলে অবশ্যই গুগলে ইনডেক্স করবে।

পোস্ট ইনডেক্স না হলে কি করব?

আপনি যদি কপি কন্টেন্ট পাবলিশ করেন, তাহলে গুগোল ইনডেক্সড নাও করতে পারে। সুতরাং নিজে ইউনিক কন্টেন্ট লিখুন এবং এসইও করুন, তাহলে গুগল অবশ্যই ইনডেক্স করবে।

আমি আমার ইনডেক্স হওয়া পোস্ট এডিট করেছি। এখন ইন্টেক্স দেখাচ্ছেনা, আমার করনীয় কি?

ছোট ধরনের পরিবর্তনে অবশ্যই ইনডেক্স হওয়া পোস্ট ইনডেক্স চলে যাবে না। যদি আপনি আপনার আর্টিকেলে বড় ধরনের পরিবর্তন করে থাকেন, তাহলে ইন্টেক্স চলে যেতে পারে। তবে চিন্তার কোন কারণ নেই, গুগল পরবর্তীতে অবশ্য ইনডেক্স করবে।

শেষ কথা:

এছাড়াও অনেক error এর কারণে অনেক সময় কোন পোস্ট বা পেজ ইনডেক্স হয় না। তবে এতে চিন্তার কারণ নেই, যদি আপনার ওয়েবসাইট গুগল সার্চ করলে যুক্ত করা থাকে, তাহলে গুগল সার্চ কনসোল আপনাকে মেইল করে সমস্যাগুলো বলে দেবে। ওয়েবসাইটের সমস্ত এরর আপনি আপনার সার্চ কনসোল একাউন্টে দেখতে পারবেন।

আশা করি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা উপকৃত হয়েছেন। ভালো লাগলে কমেন্টে আপনার মতামত জানাতে পারেন। যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানান। আমি প্রতিটা কমেন্ট গুরুত্ব সহকারে রিপ্লাই দেয়ার চেষ্টা করব। এরকম আরো সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

ভুল-ত্রুটি মার্জনীয়। অসংখ্য সবাইকে ধন্যবাদ।

11 Comments

  1. sohag Reply

    Thank you so longly, I was bound by the problem, and I was built on this problem for a long time. You could solve the issue posted by your. Thanks for playing very important role.

Leave a Reply

Your email address will not be published.