অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

এসইও শিখে 3টি মাধ্যমে অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

আজকে আমি অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় গুলো নিয়ে আলোচনা করব। এবং এই 3টি টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় এর সাহায্যে আপনি আপনার অনলাইন ইনকাম শুরু করতে পারেন। 

আমি আজকে যে 3টি টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়গুলো নিয়ে আলোচনা করব, এই 3টি উপায়ে আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারবেন। এছাড়াও  নিজের জন্য কাজ করে প্যাসিভ ইনকাম করতে পারবেন।

এই 3টি অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় গুলোতে কাজ  করার মাধ্যমে আপনি প্রতি মাসে সর্বনিম্ন 1লাখ থেকে সর্বোচ্চ 10 লাখ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনাকে প্রথম বছরে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়। 

আপনি যদি প্রথম বছরে আপনার টার্গেট অনুযায়ী বেশি কাজ করতে পারেন,পরবর্তী বছরগুলোতে আপনাকে অনেক বেশি কাজ করতে হবে না। আপনি শুধু বসে থেকে টাকা ইনকাম করে যাবেন।

তো চলুন কথা না বাড়িয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়
অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় গুলোর মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় হচ্ছে ব্লগিং। তবে এর জন্য আপনাকে কয়েকটা স্কিলের উপর ভালোভাবে জ্ঞান রাখতে হবে। স্কিল গুলো সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো:

  1. আপনাকে এসইও শিখতে হবে
  2. ব্লগিং সম্পর্কে ধারণা নিবেন
  3. মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে ধারণা

এই তিনটার মধ্যে আপনার প্রধান স্কিল হবে এসইও। অর্থাৎ আপনি যদি এসইও সম্পর্কে ভালোভাবে ধারণা নিতে পারেন। তাহলে আপনি এই এসইও ব্যবহার করে 3টি পদ্ধতিতে অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় রয়েছে।

1. ব্লগিং দিয়ে অনলাইনে আয় করার সহজ উপায়:

ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায়
ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায়

এসইও শিখে আপনি ব্লগিং করে প্রতিমাসে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ব্লগিং  হচ্ছে অনলাইনে আয় করার সহজ উপায় গুলোর মধ্যে অন্যতম। ব্লগিং শুরু করার জন্য আপনার যা যা করতে হবে নিচে তার ব্যাখ্যা করা হলো:

এসইও শিখতে হবে

যেহেতু আপনি ব্লগিং করবেন, সুতরাং আপনাকে গুগলে  আপনার সাইট রেংকিং করাতে হবে।  যারা এসইও পারেনা তাদের কাছে এই কাজটির কথা শুনে অনেক কঠিন মনে হতে পারে। তবে আপনি যদি এসইও শিখতে পারেন তাহলে আপনার কাছে  গুগোল রিংকি করা অনেক  সাধারণ কাজ বলে মনে হবে।

আপনি যদি এসইউসি ঠিকমত না পারেন তবুও আপনি ব্লগিং শুরু করতে পারবেন। আপনি যদি ইউজার ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে পারেন তাহলে আপনি এশিয়াতে ভালো ইনকাম করতে পারবেন। আর যদি আপনি এসইও শিখে আপনার সাইট গুলোর আর্টিকেল রান করাতে পারেন তাহলে তো আর কথাই নেই।

ওয়েবসাইট সম্পর্কে ধারণা

আপনি যদি ব্লগিং করে ইনকাম করতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে বিভিন্ন CMS(কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম) যেমন ওয়াডপ্রেস, ব্লগার সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। অর্থাৎ একটি ব্লগ সাইট তৈরি ক্যাটাগরি তৈরি পোস্ট লেখা এবং একটি সাইট ডিজাইন করা ইত্যাদি সাধারন নলেজ আপনাকে থাকতেই হবে।

যত আপনি ব্লগিং করেন এবং আপনার ব্লগ সাইট যদি আপনি নিজে তৈরী না করতে পারেন এবং আপনি যদি নিজে রক্ষাণাবেক্ষণ না করতে পারেন, তাহলে অবশ্যই আপনি ভালো কিছু করতে পারবেন না। এগুলো খুবই সাধারণ কাজ। আপনি দুই থেকে চার দিন ভালোভাবে দেখলেই এগুলো পারবেন।

 ব্লগিং-এর ইনকাম গুলো হচ্ছে প্যাসিভ ইনকাম। প্যাসিভ ইনকাম হচ্ছে একটি কাজ করে এ  লং টাইম সে কাজের বিনিময়ে টাকা পাওয়া। যেমন আপনি একটি আর্টিকেল লিখলেন এবং  আর্টিকেল থেকে আপনি বছরের পর বছর ইনকাম পেতে থাকবেন। 

ব্লগিং সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল

বাংলা ব্লগিং সাইট – ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায় ?

কিভাবে মোবাইল দিয়ে ব্লগিং শুরু করবেন? (বিস্তারিত গাইড)

মোবাইল দিয়ে  ব্লগিং করে অনলাইন ইনকাম 

মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করে ইনকাম ফ্রী কোর্স

2. ইউটিউব অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়:

এসইও শিখে আরেকটি মাধ্যমে আপনি সহজেই ইনকাম করতে পারবেন সেটা হচ্ছে ইউটিউব। এসইও স্কিন গুলোতে কাজ করার সময় যদি আপনি ভিডিও করে ইউটিউবে প্রকাশ করেন, সেই ইউটিউব থেকে আপনি প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

যেমন: ধরেন আপনি ব্লগিং করেন,  আপনি কিভাবে ব্লগিং শুরু করলেন? কিভাবে  এসইও করেন?  কত টাকা ইনকাম?  ইত্যাদি রিলেটেড ইউটিউব ভিডিও প্রকাশ করতে পারেন। ইউটিউব ইনকাম হচ্ছে একটি প্যাসিভ ইনকাম। 

এসইও থেকে ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে ইনকাম করার জন্য আপনাকে নতুন করে কোন স্কিনের উপর জ্ঞান রাখতে হবে না। তারমানে আপনি শিখলে ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে ইনকাম করতে পারবেন, এর জন্য আপনাকে বাড়তি জ্ঞান রাখতে হবে না।

3. ফ্রিল্যান্সিং থেকে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়:

যেহেতু আপনি  এসইওর উপর আপনার স্কিল রয়েছে সুতরাং আপনার এই এসইও স্কিলের সাহায্যে আপনি বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস যেমন: আপওয়ার্ক, ফাইবার, ফ্রিল্যান্সার  এ কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন। 

অর্থাৎ আপনি বিভিন্ন ক্লায়েন্টের সাইটে এসইও করে দিবেন  এবং তারা এর বিনিময়ে তারা আপনাকে টাকা দিবে। ফ্রিল্যান্সিং ইনকামটা প্যাসিভ ইনকাম নয়। অর্থাৎ আপনি যদি মার্কেটপ্লেসে কাজ করেন তবে টাকা পাবেন। যদি আপনি মার্কেটপ্লেসে কাজ না করেন, তাহলে টাকা পাবেন না।

সহজ কথায় বলতে গেলে আপনি আপনার কাজের জন্য এককালীন টাকা পাবেন। কিন্তু উপরে দুইটি কাজ যেমন ব্লগিং এবং ইউটিউব এই কাজগুলো করার মাধ্যমে  লং টাইম ইনকাম পেতে থাকবেন। 

আপনার আপনার ইউটিউব চ্যানেল যে ভিডিওটি থাকবে এবং আপনার ব্লগ সাইটে যে পর্যন্ত আর্টিকেল থাকবে, সেই আর্টিকেল সেই ভিডিও থেকে আপনি ইনকাম পেতেই থাকবেন।  

যদি আপনার ads নেটওয়ার্কের কোন সমস্যা হয়, তাহলে হয়তো ইনকাম থেমে যাবে। এছাড়া আপনার  ইনকাম  থামবে না।  আপনার ইউটিউব চ্যানেল বা ওয়েবসাইটে যদি ট্রাফিক আসতে থাকে,  আপনার ইনকাম আসতেই থাকবে।

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ – কোন কাজ শেখা উচিত! বিস্তারিত জানুন
ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য কোন ল্যাপটপ ভালো ? বিস্তারিত জানুন
মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং – মোবাইল দিয়ে কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় ?

শেষ কথা

এসইও শিখে কত ভাবে যে অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় রয়েছে, আজ আমি আপনাদের এর সম্পর্কে একটু ধারনা দেয়ার চেষ্টা করলাম। আজে আর্টিকেলে দেখতে পারলেন এসইও শিখে  টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় গুলোর মধ্যে 3টি গুরুত্বপূর্ণ উপায়।

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রশ্ন বা পরামর্শ তাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আপনাদের করা প্রত্যেকটি কমেন্টের পড়াব এবং উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।

এই ওয়েবসাইটে রেগুলার ফ্রিল্যান্সিং টিপস অনলাইন ইনকাম টিপস মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম ইত্যাদি রিলেটেড রেগুলার আর্টিকেল প্রকাশ করা হয়। অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চাইলে অথবা অনলাইন বিষয়ে বিভিন্ন টিপস পেতে চাইলে ওয়েব শরিফুলের সাথেই থাকুন। 

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.