নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করুন 2022

নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করুন 2022: কিভাবে বাড়িতে বসে মোবাইল দিয়ে নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন, এই বিষয়টা আমি লাইভ দেখাবো।

অনেক সময় আমাদের বাসা বাড়িতে অথবা নতুন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অথবা দোকানে নতুন মিটার লাগানোর প্রয়োজন হয়। নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়ার জন্য আমাদের নতুন মিটারের প্রয়োজন হয়, কিন্তু আমরা নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারি না।

তাই এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনি নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে পারবেন। তো চলুন কথা না বাড়িয়ে নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন

নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন
নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন

নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার জন্য আপনাকে কয়েকটি প্রসেস ফলো করতে হবে। আপনি যদি সবগুলো প্রসেস ভালোভাবে ফলো করে নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করুন, তাহলে আপনি খুব সহজেই নতুন মিটার পেয়ে যাবেন।

আপনার নিকটস্থ এলাকায় যদি সরকারি বিদ্যুৎ থাকে, তাহলে আপনি সরকারি বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আর আপনার যদি নিকটস্থ এলাকায় পল্লী বিদ্যুৎ থাকে, তাহলে পল্লী বিদ্যুৎ নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

সরকারি বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য আবেদন

আপনাদের সুবিধার জন্য নতুন মিটারে অনলাইনে আবেদন করার একটি ভিডিও যুক্ত করে দিব। আপনি সম্পূর্ণ ভিডিওটি ভাল করে দেখে তারপরে নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করুন, তাহলে খুব সহজেই নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এবং খুব সহজে নতুন মিটার পেয়ে যাবেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: আপনারা যদি পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগের নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে চান, তাহলেও পাবেন এটা নিচে আরো বিস্তারিত ভাবে উল্লেখ করা আছে।

কিভাবে সরকারি বিদ্যুতের জন্য নতুন মিটারের জন্য আবেদন করবেন এই বিষয়টি ভিডিওটি সম্পূর্ন দেখানো হয়েছে। 

নতুন মিটারের জন্য আবেদন নিচে ভিডিও যুক্ত করা হলো:

উপরে আমি যে প্রসেসটি দেখেছি সেটা সরকারি বিদ্যুতের সংযোগের জন্য। এটা পল্লী বিদ্যুতের জন্য নয়,  এখন অনেকের প্রশ্ন হতে পারে আমি কিভাবে পল্লী বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য আবেদন করব?  নিচে এই সম্পর্কে আমি বিস্তারিত লক্ষ্য করলাম।

পল্লী বিদ্যুৎ নতুন মিটারের জন্য আবেদন

আপনি কি পল্লী বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে চাচ্ছেন? তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। এই আর্টিকেলে পল্লী বিদ্যুৎ নতুন মিটারে অনলাইনে আবেদনের পদ্ধতি সম্পর্কে আমি বিস্তারিত জানাবো।

আপনার এলাকায় যদি পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ থাকে এবং আপনি যদি পল্লী বিদ্যুতে নিতে চান এবং কিভাবে নতুন মিটারের জন্য আবেদন করবেন? 

আপনি খুব সহজেই পল্লী বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য আবেদন করতে পারেন। অনলাইনে আবেদন করার 30 কার্যদিবসের মধ্যে আপনার বাসা পল্লী বিদ্যুৎ নতুন সংযোগ পেয়ে যাবেন।

সম্মানিত ভিজিটর, পল্লী বিদ্যুৎ নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করার জন্য তৃতীয় পক্ষের কোনো হেল্প এর প্রয়োজন নেই। আপনি সরাসরি আপনার নিকটস্থ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে যোগাযোগ  করুন এবং অনলাইন নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার মাধ্যমে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ  স্থাপন করুন। 

ডার্ক ওয়েব লিংক – যেভাবে প্রবেশ করবেন

পল্লী বিদ্যুতের মিটার আবেদন করার পদ্ধতি

পল্লী বিদ্যুৎ নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে প্রাথমিকভাবে অনলাইনে একটি ফরম পূরণ করতে হবে। নতুন সংযোগের জন্য অনলাইনে আবেদন ফরমটি আপনি পল্লীবিদ্যুৎ এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে rebpbs.com পেয়ে যাবেন। 

এরপর আপনাকে ওয়ারিং রিপোর্ট সহ সেই ফরম এর কপি সহ নিকটস্থ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে যোগাযোগ করতে হবে। আমরা এই আর্টিকেলে পল্লী বিদ্যুতের প্রাথমিক আবেদনের  একটি ভিডিও যুক্ত করে দিয়েছি।  ভিডিওটি দেখে লিংকে গিয়ে আপনাকে আবেদন ফর্মটি পূরণ করতে হবে।

পল্লী বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য আবেদন যা যা লাগবে

পল্লী বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন ক্ষেত্রে আপনাকে যা যা লাগবে তা  নিচে দেওয়া হল। আবেদন করার জন্য যা যা তথ্য লাগবে, তা হল

  • আবেদনকারীর নাম।
  • আবেদনকারীর ঠিকানা।
  • আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্র।
  • দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  • ওয়ারিং রিপোর্ট।
  • প্রয়োজনীয় টাকা।
  • সংযোগস্থলের খারিজের স্ক্যান কপি

অনলাইন মিটারের আবেদন করার ভিডিও

পল্লী বিদ্যুৎ অনলাইন নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে পল্লী বিদ্যুৎ এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে rebpbs.com প্রবেশ করতে হবে। 

পল্লী বিদ্যুৎ এর অফিসিয়াল সাইটে ভিজিট করে প্রাথমিক আবেদন ফরম টি আপনাকে পূরণ করতে হবে। আপনি কিভাবে খুব সহজেই পল্লী বিদ্যুতে প্রাথমিক আবেদন ফর্মটি পূরণ করবেন এ সম্পর্কে আমি একটি নিচে ভিডিও যুক্ত করে দিচ্ছি আপনি ভিডিওটি সম্পূর্ণ মনোযোগ সহকারে দেখুন। 

পল্লী বিদ্যুৎ আবাসিক সংযোগের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য

বর্তমানে পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি  আবাসিক সংযোগ স্থাপন করে থাকে। তবে আবাসিক সংযোগ গুলো খুব সহজে পল্লী বিদ্যুতের স্থানীয় সমবায় সমিতি থেকে খুব সহজে নেওয়া যায়।  পল্লী বিদ্যুতের আবাসিক সংযোগ নেয়ার জন্য আপনাদের কোন দালাল ধরতে হবে না আপনি নিজেই সংযোগ স্থাপন করতে পারবেন। 

  • ১) আবেদন করার সময় ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্র ও সংযোগস্থলের খারিজের স্ক্যান কপি সংযুক্ত করতে হবে।
  • ২) সার্ভিস ড্রপের দুরত্ব (সংযোগস্থল হইতে সার্ভিস পোলের দুরত্ব)১৩০ ফুটের মধ্যে হতে হবে।
  • ৩) সঠিক ভাবে মেপে সার্ভিস ড্রপের দুরত্ব প্রদান করুন। সার্ভিস ড্রপের দুরত্ব সঠিক না হলে তারের দৈর্ঘ্য কম/বেশি পারে। ভুল তথ্য দিলে পরবর্তীতে সংযোগ পেতে বিলম্ব হতে পারে।
  • ৪) মোট লোড ৮০ কিলোওয়াট এর বেশি হলে এইচটি সংযোগের নিয়মাবলী প্রযোজ্য হবে।
  • ৫) অনলাইনে সার্ভে করার পর প্রয়োজনীয় অর্থ (আবেদন ফি, মেম্বারশীপ ফি ও নিরাপত্তা জামানত) জমাদানসহ সকল নির্দেশনা এসএমএস এর মাধ্যমে জানানো হবে।
  • ৬) আবেদন ফরমের লাল(*) চিহ্নিত ক্ষেত্রগুলো অবশ্যই পূরন করতে হবে।
  • ৭) আবেদন পত্রে গ্রাহকের নিজস্ব মোবাইল নম্বর প্রদান করুন।
  • ৮) আবেদনের পর প্রাপ্ত ট্র্যাকিং আইডি এবং পিন নম্বর অবশ্যই সংরক্ষণ করতে হবে।
  • ৯) সংযোগের অর্থ ডাচবাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং (রকেট) এর মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে।
  • ১০) ডাচবাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ফি পরিশোধ করার জন্য নিচে নিয়মাবলী দেখে নিন।

পল্লী বিদ্যুতের নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার জন্য আপনাকে টাকা যেভাবে প্রেমেন্ট করতে হবে।   আপনার রকেট একাউন্টের সাহায্যে আপনি খুব সহজেই নতুন মিটারের জন্য টাকা পেমেন্ট করতে পারবেন। 

কিভাবে নতুন মিটারের জন্য টাকা পেমেন্ট করবেন সে সম্পর্কে আমি একটি চিত্র দিয়ে দিচ্ছি। 

আরো পড়ুন:

 উপসংহার:

নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার পর দুইটি পদ্ধতি আমি দেখিয়েছি আপনি যদি সরকারি বিদ্যুৎ স্থাপন করতে সংযোগ নিতে চান তাহলে ওপরের অংশে তা পাবেন এবং আপনি যদি পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ নিতে চান তাহলে পল্লী বিদ্যুতের অংশে পড়ে নিয়ে সংযোগের জন্য আবেদন করতে পারবেন

এ সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রশ্ন অথবা পরামর্শ তাহাকে, তাহলে কমেন্ট করুন। আমি সবগুলো কমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ার জন্য সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ। 

Leave a Comment